Home / লাইফস্টাইল / এই গরমে ডেঙ্গু থেকে দূরে থাকবেন কীভাবে?

এই গরমে ডেঙ্গু থেকে দূরে থাকবেন কীভাবে?

আজ আপনাদের মাঝে অরেকটি আর্টিকেল নিয়ে হাজির হলাম। আজ আপনাদের জানাবো এই গরমে ডেঙ্গু থেকে দূরে থাকবেন কীভাবে সে সম্পর্কে। শীতে তেমন আনাগোনো না থাকলেও গরম বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে মশার দাপটে অতিষ্ট হয়ে ওঠে স্বাভাবিক জনজীবন। ক্ষতিকারক মশাদের মধ্যে সবচেয়ে মারাত্মক মশার নাম ডেঙ্গু। আর গরমের ঠিক এই সময়টাতেই ডেঙ্গুতে আক্রান্তের ঝুঁকি সবচেয়ে বেশি বেড়ে যায়।এই গরমে ডেঙ্গু থেকে দূরে থাকবেন কীভাবে

এই গরমে ডেঙ্গু থেকে দূরে থাকবেন কীভাবে?

গ্রীষ্মের শুরু থেকে বর্ষার সময়টায় ডেঙ্গুর পাদুর্ভাব চোখে পড়ার মতো। ডেঙ্গু মূলত মশাবাহিত একটি সংক্রমণ, যা কোনো কোনো সময় মানুষের জন্য প্রাণঘাতীও হয়ে উঠতে পারে। শিশু থেকে বয়স্ক যে কারোরই যেকোনো সময় ডেঙ্গু সংক্রমণ হতে পারে।

ডেঙ্গু সংক্রমণে দীর্ঘদিন অসুস্থ হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। জ্বরের সঙ্গে থাকে একাধিক শারীরিক সমস্যা। এ সময় জ্বরের সঙ্গে থাকে ঠান্ডা, সর্দি, মাংসপেশি এবং শরীরের বিভিন্ন গাঁটে অসম্ভব ব্যথা, শরীরের বিভিন্ন স্থানে র‌্যাশ, মাথাব্যথা, চোখব্যথা, বমি, মাথা ঘোরা ইত্যাদি। এসব উপসর্গ দেখা দিলে যত দ্রুত সম্ভব কাছের হাসপাতালে চিকিৎসা গ্রহণ করা প্রয়োজন বলে মনে করেন বিশেষজ্ঞরা।

এডিস মশার মাধ্যমে এই রোগটি ছড়ায়। সাধারণত দিনের বেলা এই মশা সবচেয়ে বেশি কার্যকর থাকে। বিশেষজ্ঞদের মতে, ভোর ও সন্ধ্যাবেলা সবচেয়ে বেশি সক্রিয় থাকে এই মশা।

ডেঙ্গুর এখনো কোনো টিকা বা ওষুধ আবিষ্কার হয়নি। তাই আক্রান্ত ব্যক্তির উপসর্গ দেখে নিরাময়ের চেষ্টা করা হয়, যাতে তা জটিলতা সৃষ্টি না করে।

এই রোগে আক্রান্ত হলে সবসময় জ্বর নিয়ন্ত্রণে রাখার চেষ্টা করতে হবে। খেয়াল রাখতে হবে শরীরে যেন পানির পরিমাণ কমে না যায়।

চিকিৎসকরা এই সময় রোগীর প্লেটলেটের দিকে নজর রাখেন। কারণ, ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগীর প্লেটলেটের সংখ্যা হঠাৎ করেই কমে যায়, যা ডেঙ্গু রোগীর জন্য প্রাণঘাতী হয়ে ওঠে।

তবে বিশেষজ্ঞরা বলছেন, প্রতিকারের চেয়ে প্রতিরোধই হতে পারে এই রোগ বিনাশের প্রধান হাতিয়ার। মশার বংশবিস্তার রোধে বাড়ির আশপাশ ও বাড়ির অভ্যন্তরীণ জায়গা রাখতে হবে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন।

কোথাও যেন পানি জমে না থাকে, সেদিকে সতর্ক দৃষ্টি রাখুন। ফ্রিজ থেকে পানি পড়লে তা নিয়মিত পরিষ্কার করুন। বাড়িতে গাছের টবে যেন পানি জমে না থাকে, সেদিকে খেয়াল রাখুন।

বাড়িতে মশার উপদ্রব বন্ধ করতে জানালায় নেট লাগাতে পারেন। মশার কামড় থেকে বাঁচতে অবশ্যই ঘুমানোর সময় মশারি ব্যবহার করুন।

আমাদের লেখা আপনার কেমন লাগছে ও আপনার যদি কোনো প্রশ্ন থাকে তবে নিচে কমেন্ট করে জানান। আপনার বন্ধুদের কাছে পোস্টটি পৌঁছে দিতে দয়া করে শেয়ার করুন। পুরো পোস্টটি পড়ার জন্য আপনাকে অনেক ধন্যবাদ।

About admin

Check Also

যে খাবারগুলো খাবেন রমজান মাসে

যে খাবারগুলো খাবেন রমজান মাসে

আজ আপনাদের মাঝে অরেকটি আর্টিকেল নিয়ে হাজির হলাম। আজ আপনাদের জানাবো যে খাবারগুলো খাবেন রমজান ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Recent Comments

No comments to show.